ট্রাভেল টিপস 104

ট্রাভেল টিপস

আমরা যখন কোথাও ঘুরতে যাওয়ার প্ল্যান করি তখন কতই না আনন্দে থাকি। সুন্দর, গোছানো এবং ঝামেলাহীন একটি ভ্রমণ আমরা সবই চাই ! কিন্তু শুধু চাইলেই তো হবে না, ঝামেলাবিহীন ভ্রমণের জন্য চাই চমৎকার একটি ভ্রমণ পরিকল্পনা। চমৎকার কিছু পরিকল্পনাই কোনো ভ্রমণের আনন্দকে আরো বাড়িয়ে দেয়।

ভ্রমণের ক্ষেত্রে সবসময়েই আমাদের কিছু সীমাবদ্ধতা থাকে। অনেকের পর্যাপ্ত বাজেটের অভাব থাকে, আবার অনেকের ঠিকঠাক বাজেট থাকলেও সময়ের অভাব থাকে। আবার কারো কারো বাজেট, সময় দুটোই ঠিকঠাক থাকার পরেও শুধুমাত্র চমৎকার পরিকল্পনার অভাবে ভ্রমণটি আনন্দদায়ক হয় না। কোনো ভ্রমণের ক্ষেত্রে, সঠিক পরিকল্পনা গ্রহণের ক্ষেত্রে আমরা নিজের অজান্তেই হরহামেশা কিছু ভুল করে ফেলি। অথচ একটু সতর্ক হলেই এই ভুলগুলো আমরা খুব সহজেই এড়িয়ে যেতে পারি। সুন্দর ও সার্থক সার্থক ভ্রমণ পরিকল্পনার ক্ষেত্রে ঠিক কোন বিষয়গুলোর প্রতি খেয়াল রাখা প্রয়োজন, সেগুলো নিয়েই আজকের এই লিখা।

ট্রাভেল ব্যাগ

প্রয়োজনের অতিরিক্ত লাগেজ/ব্যাগ নয়

ভ্রমণের ক্ষেত্রে প্রথমে আমাদের সাথে বহন করা লাগেজ/ব্যাগ নির্বাচনে সতর্ক নজর রাখা প্রয়োজন। ভ্রমণ দূরে হোক কিংবা কাছে, প্রয়োজনের অতিরিক্ত লাগেজ ভ্রমণের যাবতীয় আনন্দই মাটি করে দিতে পারে। এই লাগেজের অংশ হতে পারে আমাদের পরিধেয় পোশাক বা গ্যাজেট সামগ্রী। বেড়ানোর সময়টাতে আমরা যদিও আমাদের সংগ্রহের প্রিয় সব ধরনের পোশাকই পরতে চাই এবং প্রিয় সব গ্যাজেটগুলোকে সাথে রাখতে চাই, কিন্তু এগুলো বহনের বিষয়েও আমাদের চিন্তা করতে হবে। অতিরিক্ত প্যাকিং একদিকে যেমন বহন করা কষ্টকর, ঠিক তেমনি বাড়তি লাগেজের জন্য আমাদের গুণতে হতে পারে অতিরিক্ত ভাড়া। কাজেই ভ্রমণকালে প্রয়োজনের অতিরিক্ত প্যাকিং এবং লাগেজ বহন না করাই বুদ্ধিমানের কাজ।

ভ্রমণকালীন যোগাযোগ

দেশে হোক অথবা বিদেশে, ভ্রমণকালে আমাদের যোগাযোগ রক্ষার বিষয়টি সম্পর্কে সতর্ক থাকা প্রয়োজন। যে কোনো ধরনের বিপদে অথবা জরুরি কোনো প্রয়োজনে যাতে করে আত্মীয়-স্বজন, বন্ধুবান্ধব এবং কর্তৃপক্ষের সাথে সহজে যোগাযোগ করা যায় সেই বিষয়ের দিকে নজর রাখা জরুরি। এক্ষেত্রে মোবাইল ফোনে পর্যাপ্ত ব্যাল্যান্স, ইন্টারনেট ব্যান্ডউইডথ থাকছে কিনা এই বিষয়গুলোর প্রতি খেয়াল রাখাই বুদ্ধিমানের কাজ। এছাড়া বিদেশ ভ্রমণকালে কথা বলার জন্য রোমিং সুবিধাসহ যোগাযোগের ক্ষেত্রেও বাড়তি সতর্ক থাকলে সময় এবং অনাকাঙ্ক্ষিত বিপদ থেকে সহজেই পরিত্রাণ পাওয়া সম্ভব। বিদেশে গিয়ে সিম নিতে চাইলে কি কি পেপারস লাগবে তা আগে থেকে জেনে নেয়া ভালো।

সময়

সময়

বেশিরভাগ সময়েই ভ্রমণের ক্ষেত্রে আমাদের প্রধান সমস্যা হলো দেরি করে উপিস্থিত হওয়া। শেষ মুহূর্তে ব্যাগ গুছানো বা ট্রাফিক জ্যামে আটকা পড়ে আমরা দেরি করে ফেলি। সময়ের প্রতি নজর রাখুন। এক্ষেত্রে একটু বেশি সময় হাতে রাখাই বুদ্ধিমানের কাজ। দেশ-বিদেশে ভ্রমণের ক্ষেত্রে যাতায়াতের ক্ষেত্রে নির্ধারিত সময়ের থেকে বেশি সময় লাগতে পারে। এছাড়া ভ্রমণের ক্ষেত্রে তাড়াহুড়া না করে একটু সময় হাতে নিয়েই যাত্রা করা উচিত। হাতে সময় না থাকলে যানবাহন সময়মত ধরতে না পারা সহ নানা ধরনের প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হতে হয়।

বৈদেশিক মুদ্রা

বিদেশ ভ্রমণকালে আপনি যে দেশে ভ্রমণ করছেন সেই দেশের মুদ্রার বিষয়ে সতর্ক হওয়াই ভালো। এক্ষেত্রে প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী যাত্রা শুরুর আগেই গন্তব্যের দেশটির কিছু মুদ্রা সংগ্রহ করে রাখা যেতে পারে। এছাড়া ভ্রমণের আগে গন্তব্যের দেশটির সাথে আমাদের মুদ্রা মান এবং এটিএম সুবিধাদির বিষয়গুলোও নজরে রাখা প্রয়োজন। আগে থেকে কিছু মুদ্রা সাথে থাকলে গন্তব্যে পৌঁছানোর পরে সময় এবং বিড়ম্বনা থেকে অনেকাংশে পরিত্রাণ পাওয়া সম্ভব।

নিজের সামর্থ্যের দিকে খেয়াল রাখা

কম সময়ে যদি খুব বেশি জায়গা বা স্থান ভ্রমণের পরিকল্পনা থেকে থাকে সেক্ষেত্রে আমাদের সবারই নিজের শারীরিক শক্তি এবং সামর্থ্যের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে। আমরা কেউই ভ্রমণ চলাকালীন সময়ে অসুস্থ হওয়ার বিষয়টি প্রত্যাশা করি না। ভ্রমণ হওয়া উচিত সুখকর একটি বিষয়। এক্ষেত্রে অল্প সময়ে আমরা খুব বেশি স্থান ভ্রমণ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে নির্বাচন করি, সেক্ষেত্রে অনেকেই অল্প সময়ে ক্লান্তিসহ নানা শারীরিক সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন। এক্ষেত্রে আমাদের শারীরিক শক্তি এবং সামর্থ্যের দিকে খেয়াল রেখে স্থান নির্বাচন এবং ভ্রমণ পরিকল্পনা সাজানো উচিত।

ট্রাভেল টিপস

থাকার স্থান এবং যাতায়াত নির্বাচন

ভ্রমণের ক্ষেত্রে থাকার জন্য নিরাপদ আবাসন এবং যাতায়াতকালীন যানবাহন ব্যবস্থা যাত্রা শুরু করার আগেই ঠিকঠাক করে নেয়া ভালো। আপনি আগে থেকেই হোটেল বুকিং করে রাখতে পারেন। এখন বিভিন্ন এপস বা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আগে থেকেই হোটেলের রুম এবং সুবিধাদি দেখে পছন্দসই রুম বুক করতে পারেন। আপনি কোন উপায়ে কাঙ্ক্ষিত স্থানে যেতে চান এবং সেই স্থানে রাত্রি যাপনের জন্য কী আবাসন ব্যবস্থা থাকছে এইসব বিষয়ে আগে থেকে সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত। এর ফলে একদিকে ভ্রমণ চলাকালীন সময়ে যেমন প্রচুর সময় বাঁচানো সম্ভব, ঠিক তেমনি এর ফলে নির্বিঘ্ন ভ্রমণ সম্ভাবনাও অনেকাংশে বেড়ে যায়।

মূল্যবান জিনিসের প্রতি সাবধানী হওয়া

দেশ-বিদেশে ভ্রমণের ক্ষেত্রে আমাদের সাথে সাধারণত টাকা-পয়সা, মোবাইল, ক্যামেরা, বিভিন্ন রকমের গ্যাজেট ইত্যাদি মূল্যবান জিনিস থেকে থাকে। ভ্রমণকালে এই সব জিনিসের প্রতি সতর্ক নজর রাখা উচিত। আমাদের যে কোনো মুহূর্তের অসাবধানী মানসিকতার কারণে আমরা একদিকে যেমন দামি কোনো জিনিস হারিয়ে ফেলতে পারি, আবার ঠিক তেমনি নানা ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত অবস্থায় পড়তে পারি। এছাড়া ভ্রমণকালে মূল্যবান কোনো জিনিস হারিয়ে ফেললে মন খারাপ হয়ে পুরো ভ্রমণের আনন্দই মাটি হয়ে যেতে পারে। কাজেই, ভ্রমণের সময় আমাদের প্রত্যেকেরই সাথে বহন করা যেকোনো ধরনের মূল্যবান দ্রব্য বা ডকুমেন্টের প্রতি সতর্ক নজর রাখা দরকার।

বৈদেশিক মুদ্রা

 

ভিসা, তথ্য এবং আইন-কানুন সম্পর্কে ধারণা

বিদেশ ভ্রমণের ক্ষেত্রে কাঙ্ক্ষিত দেশটিতে যাবার জন্য ভিসা অনুমতি, দেশটির আইন সম্পর্কে সম্যক ধারণা, জরুরি প্রয়োজনে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার কাজে নিয়োজিত বিভাগে যোগাযোগের নম্বর ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে আগে থেকে খবর নিয়ে নেওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ। এতে করে ভ্রমণের সময় কোনো দরকারে যেমন সময় বাঁচে, ঠিক তেমনি দ্রুততম সময়ে একটি সমাধানও পাওয়া সম্ভব হয়।

কোই যান একটি ব্লগ, বাংলাদেশের সকল ভ্রমণ তথ্য এবং পরামর্শ একজায়গায় করার লক্ষে কোই যান এর যাত্রা শুরু হয় ২০১৭ সালে। কই যান.কম বাংলাদেশের প্রথম এবং সবচেয়ে বড় পর্যটন ও ভ্রমণ সম্পর্কিত ওয়েব সাইট। ভ্রমণের ক থেকে ‍ঁ জানতে আমাদের সাথেই থাকুন। লিখা সম্পর্কে যেকোনো পরামর্শ অথবা কপি রাইট এর বেপারে লিখুন : [email protected]

সর্বাধিক জনপ্রিয় বিষয়গুলি

আমাদের পছন্দের লিখা গুলি