বাজেট ট্রাভেলারদের জন্য ইন্দোনেশিয়া কেমন? বাজেট ট্রাভেলারদের জন্য ইন্দোনেশিয়া কেমন? তে মন্তব্য বন্ধ 94

ইন্দোনেশিয়া

বাজেট ট্রাভেলারদের জন্য (পূষণ)

ইন্দোনেশিয়া … বাজেট ট্রাভেলারদের জন্যঃ

#বিমান টিকেটঃ ৩-৪ মাস আগে থেকে বুক করুন … আমার আপ ডাউন (বালি) পরেছিল ২৭০০০ টাকা… Malindo Air.

#কোথায় ঘুরবেনঃ ইন্দোনেশিয়াতে দেখার মত অনেক সুন্দর জায়গা আছে… আমার প্ল্যান ছিল বালির কুটা এবং উবুদ…আর নুসা পেনিদা ও গিলি আইল্যান্ড।

#খরচঃ এই পোস্টে সব খরচ বালির মুদ্রা Rupiah তে বর্ণনা করব। আমার ঘুরার সময় ১ ইউ এস ডি = ১৩৬৫০ রুপিয়া ছিল। জায়গা ভেদে রেইট কম বেশি হতে পারে।

#হোটেল বুকিং: আমি সব হোটেল বুক করসি Agoda থেকে… মোটামুটি খরচ এবং ভাল রিভিউ দেখে হোটেল
ঠিক করসি। যেসব হোটেল এ ছিলাম তার নাম ও খরচ বর্ণনাতে থাকবে…

#Transport: বালিতে আমার টারগেট ছিল ব্লু বার্ড টেক্সি … কারণ মিটারে চালিত এই টেক্সির খরচ কিছুটা কম।যাওয়ার আগে My blue bird app টা install করে নিবেন… বালিতে Ubar ও আছে… কিন্তু আমি use করতে পারিনি। বালিতে যারা মোটর বাইক চালাতে পারে তাদের খরচ প্রায় দুই তৃতীয়াংশ কমে যায়। দিন প্রতি ৫০০০০/৬০০০০Rp বাইকের জন্য আর পেট্রোল খরচ নিজের। বেশিরভাগ হোটেলের নিজেদের bike rent আছে।

#Sim : বালিতে ইন্টারনেট প্যাকেজ পাওয়া যায় sim সাথে। কিন্তু touristদের জন্য কল করার সুবিধা থাকে না। আমার ৪জিবি প্যাকেজ এর দাম ছিল ২০০০০০Rp.কয়েক জায়গায় খোজ করলে এর চেয়েও কমে পাওয়া যেতে পারে।

#খাওয়াদাওয়াঃ বালিতে Street food এর মান খুবই ভাল আর দাম ও কম।৫০০০০Rp তে একবেলা একজনের হয়ে যাবে। সি ফুডের দাম ও তেমন বেশি না… আর বারগেইন করার অভ্যাস থাক্লে তো কথাই নেই। যাই খাবেন অথবা কিনবেন অবশ্যই বারগেইন করবেন।

#বালি খুবই পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন একটি জায়গা।ওদের কাছে বাংলাদেশ এখনো অচেনা। দয়া করে এখানে সেখানে ময়লা আবর্জনা ফেলে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করবেন না।

১ম দিনঃ

দেনপাসার এয়ারপোর্টে নেমে প্রথমে ইমিগ্রেসান শেষ করি। ৩০দিনের কম থাকলে এন্ট্রি ফ্রি।জাস্ট পাসপোর্ট আর
রিটার্ণ টিকে ট দেখালেই হবে। এয়ারপোর্টে এ খরচ কমানোর সুযোগ কম।১ডলার =১৩৩০০ Rp.. তাই শুধু ২০ ডলা

ইন্দোনেশিয়া
ইন্দোনেশিয়া

র ভাঙ্গিয়ে হোটেলের উদ্দেশ্যে বের হই। এয়ারপোর্টের পার্কিং থেকে প্রাইভেট টেক্সি নিতে হল(১৩০০০০Rp). কারণ sim না থাকায় blue bird app চালু করতে পারিনি।

কুটাতে আমাদের হোটেলের নাম ছিল Pondok Denayu Homestay …এক রাত ছিলাম । রুম এসি, কন্ডিসান ভাল, breakfast complimentary ছিল। (২০৫০০০Rp).
প্রথম দিন বাইক খুজার সময় হয়নি। তাই homestay থেকেই Uluwatu temple এর জন্য প্রাইভেট টেক্সি ভাড়া করি(৪০০০০০Rp). Temple টা খুবই সুন্দর। আর কীচক ড্যান্স মাস্ট ওয়াচ ড্যান্স। এটার জন্য temple এর নিচে টিকেট কাউন্টার থেকে ১০০০০০Rp দিয়ে টিকেট কিন্তে হবে। btw temple এ ঢোকার জন্য ও টিকে ট লাগবে। জন প্রতি ৩০০০০/৫০০০০Rp আমার ঠি ক মনে নেই।

২য় দিনঃ

সকালে breakfast সেরে homestay থেকেই ম্যানেজ করে দেয়া shuttle bus এ চলে আসি উবুদ। প্রতি জন ৮০০০০Rp. উবুদ এ আমাদের হোটেলের নাম ছিল Teba House Ubud Guest House. এখানে ছিলাম ৩ রাত…খরচ পরেছিল ৪৫০০০০ Rp….breakfast সহ। হোটেলে এসেই Mount Batur traking এর জন্য বারগেইন করে প্যাকেজ ঠি ক করি… হোটেলে পিক আপ এবং ড্রপ করে দিয়ে যাবে সাথে ব্রেকফাস্ট … সময় রাত ২টা থেকে সকাল ১১টা… খরচ ৩০০০০০Rp প্রতি জন। বিকেলে স্থানীয় উবুদ মার্কেট ঘুরে বেড়াই… এখানেও জিনিসপত্র কিনতে হলে বারগেইন করা আবশ্যক।

ইন্দোনেশিয়া

৩য় দিনঃ

ভোর রাতে উঠে ট্রেকিং এর জন্য রওনা দিই। প্রায় উঠা নামা মিলিয়ে ৫ ঘন্টার ট্র্যাকিং … Mount Batur থেকে নেমে হোটেলে এসে আমরা ব্রেকফাস্ট করি এবং মোটর বাইক ভাড়া করি। আমাদের প্রথম গন্তব্য ছিল Tegenungan Waterfall. এখানে এন্ট্রি ফি ১০০০০Rp. Waterfall দেখে আমরা যাই Monkey forest.এন্ট্রি ফি ৫০০০০Rp. এরপর Elephant Cave দেখতে যাওয়ার কথা থাকলেও খুবই টায়ার্ড থাকার কারণে আর যাওয়া হয়নি। বিকেলের মধ্যেই ঘোরাঘুরি শেষ করে আম্রা পরদিন nusa penida এর জন্য প্যাকেজ খুজতে থাকি। কয়েকটি tourism company দেখার পর একটা ঠি ক করি… সকালে হোটেল থেকে পিক আপ করে Pedang bay … সেখান থেকে nusa penida এবং বিকেলে nusa থেকে pedang bay … thn হোটেল… খরচ পরেছিল ২ জনের ৭৫০০০০Rp. এখানে বলে রাখি এই প্যাকেজএ nusa penida island এর ভিতরে ঘোরাঘুরি অন্তর্ভুক্ত নয়।

৪র্থ দিনঃ

ভোরে ব্রেকফাস্ট সেরে nusa penida এর উদ্দেশ্যে রওনা দিই। pedang bay থেকে Gonga express এ করে নুসা পেনিদায় পৌছালাম। 40min সময় লাগে। নুসা পেনিদার map আগে থেকেই download করা ছিল। bike ভাড়া করলাম ৬০০০০Rp আর পেট্রল ২০০০০Rp (দাম vary করতে পারে)। নুসা পেনিদায় দেখার মত অনেক কিছুই আছে। আম্রা দেখেছিলাম kelinking beach, broken & crystal beach। ১ দিনে এর বেশি দেখা tough। ১ রাত থাকতে পারলে সুবিধা। আরো অনেক কিছু দেখার আছে নুসা পেনিদায়।

যারা day tour দিবেন অবশ্যই কিছু জিনিস মাথায় রাখবেন-

১. বিকেল ৩টায় শেষ speedboat ছাড়ে।

২. নুসাতে Gonga Express এর arrival & departure port আলাদা। আম্রা এই জায়গায় ঝামেলায় পরে গিয়েছিলাম ।

৩. রাস্তার অনেক জায়গায় খাড়া ঢাল আর ভাংগা আছে। তাই বাইক চালানোর সময় সাবধানে থাকবেন।

এক্ষুনি কই যান এ সাবস্ক্রাইব করুন

দেশ বিদেশের ট্রাভেলিং এর খুঁটিনাটি, মজার মজার সব ভ্রমণ কাহিনী, ট্রাভেল টিপস, ভাড়া, গাইড, ১ দিনের ট্যুর, ৩ দিনের ট্যুর। এসব আপনার ইমেইল এ পেতে এক্ষুনি কই যান এ সাবস্ক্রাইব করুন

Thank you for subscribing.

Something went wrong.

কোই যান একটি ব্লগ, বাংলাদেশের সকল ভ্রমণ তথ্য এবং পরামর্শ একজায়গায় করার লক্ষে কোই যান এর যাত্রা শুরু হয় ২০১৭ সালে। কই যান.কম বাংলাদেশের প্রথম এবং সবচেয়ে বড় পর্যটন ও ভ্রমণ সম্পর্কিত ওয়েব সাইট। ভ্রমণের ক থেকে ‍ঁ জানতে আমাদের সাথেই থাকুন। লিখা সম্পর্কে যেকোনো পরামর্শ অথবা কপি রাইট এর বেপারে লিখুন : [email protected]

সর্বাধিক জনপ্রিয় বিষয়গুলি

আমাদের পছন্দের লিখা গুলি

এক্ষুনি কই যান এ সাবস্ক্রাইব করুন

দেশ বিদেশের ট্রাভেলিং এর খুঁটিনাটি, মজার মজার সব ভ্রমণ কাহিনী, ট্রাভেল টিপস, ভাড়া, গাইড, ১ দিনের ট্যুর, ৩ দিনের ট্যুর। এসব আপনার ইমেইল এ পেতে এক্ষুনি কই যান এ সাবস্ক্রাইব করুন

কই যান এ সাবস্ক্রাইব করার জন্য ধন্যবাদ

কিছু একটা ঝামেলা হয়েছে

এক্ষুনি কই যান এ সাবস্ক্রাইব করুন

দেশ বিদেশের ট্রাভেলিং এর খুঁটিনাটি, মজার মজার সব ভ্রমণ কাহিনী, ট্রাভেল টিপস, ভাড়া, গাইড, ১ দিনের ট্যুর, ৩ দিনের ট্যুর। এসব আপনার ইমেইল এ পেতে এক্ষুনি কই যান এ সাবস্ক্রাইব করুন

কই যান এ সাবস্ক্রাইব করার জন্য ধন্যবাদ

কিছু একটা ঝামেলা হয়েছে